ভারতকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ঘোষণা ও মুসলিমদের নাগরিকত্ব বাতিলের দাবিতে হিন্দুত্ববাদীর অনশন

ভারতকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ঘোষণা ও মুসলিমদের নাগরিকত্ব বাতিলের দাবিতে ভারতের উত্তর প্রদেশের অযোধ্যার তপস্বী ছাউনির মোহন্ত পরমহংস দাশ নামের এক উগ্র হিন্দুত্ববাদী আমরণ অনশন শুরু করেছে।

সোমবার (১২ অক্টোবর) থেকে ওই উগ্র হিন্দুত্ববাদী আমরণ অনশন শুরু করেছে।

মুসলিমবিদ্বেষী ওই হিন্দুত্ববাদী মুসলিমদের নাগরিকত্ব বাতিল করার দাবি নিয়েই সীমাবদ্ধ থাকেনি। সে মুসলিমদের পাকিস্তান ও বাংলাদেশে পাঠানো এবং পাকিস্তান ও বাংলাদেশের হিন্দুদের ভারতে ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়েছে।

গত শনিবার গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উগ্র হিন্দুদত্ববাদী মোহন্ত পরমহংস দাস দাবি করে বলেছে, যখন ধর্মের ভিত্তিতে দেশ বিভক্ত হয়েছিল এবং পাকিস্তানকে মুসলিম রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল। তাহলে ভারতকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ হিসেবে ঘোষণায় আপত্তি কেন?

তার বক্তব্য, যদি ধর্মের ভিত্তিতে দেশ ভাগ না হয় তাহলে দেশভাগের কোন যৌক্তিকতা নেই। পাকিস্তান ও বাংলাদেশকে ভারতে একীভূত করে অখণ্ড ভারতের ঘোষণা করা উচিত।

এই হিন্দুত্ববাদীর দাবি, দেশে যেখানে মুসলিমদের সংখ্যা বেশি সেখানে হিন্দুদের হয়রানি করা হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে দেশকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’হিসেবে ঘোষণার মাধ্যমে যাদের সন্ত্রাসী ও জিহাদী মানসিকতা রয়েছে তাদের নাগরিকত্ব বাতিল করা উচিত। দেশকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’হিসেবে ঘোষণা করে পাকিস্তান ও বাংলাদেশে যত হিন্দু আছে তাদের ভারতে ফিরিয়ে আনা উচিত। এবং এখান থেকে মুসলিমদের পাকিস্তান ও বাংলাদেশে পাঠানো হোক।

এর আগে, হিন্দু মহাসভা কর্তৃক ‘হিন্দু রত্ন’ সম্মানে ভূষিত হওয়ার পরে, মোহন্ত পরমহংস দাশ বলেছিল, ভারতকে একটি ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ঘোষণা করা এবং ভারতকে ইসলামমুক্ত করা তার লক্ষ্য।

সূত্র: পার্সটুডে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *