শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১

আমেরিকার ইতিহাসে এই প্রথম আগাম ভোট দিল মৃত ব্যক্তি!

মঙ্গলবার থেকে আমেরিকা বহুল আলোচিত ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। দেশটির ৫০টি অঙ্গরাজ্য ৯টি ভিন্ন ভিন্ন টাইমজোনে অবস্থান করছে। এর ফলে ভোট শুরু হয় একেক অঙ্গ রাজ্যে একেক সময়ে।

আমেরিকার ভারমন্ট অঙ্গরাজ্যে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে (বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টা) ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

আনুষ্ঠানিক ভোটগ্রহণ শুরু হলেও প্রায় ১০ কোটি মানুষ আগাম ভোট দিয়েছেন। এটি ২০১৬ সালের নির্বাচনে আগাম ভোট থেকে ৭০ শতাংশ বেশি। আর এর মধ্যে ৬০ লাখেরও মতো ভোট মেইলে এসেছে। আগেরবারের চেয়ে এবারে মেইলে আসা ভোটের সংখ্যা দ্বিগুণ।

এদিকে মেইলে মৃত মানুষের ভোটও পেয়েছে নিউইয়র্ক সিটির ইলেকশন বোর্ড।

এবিষয়ে নিউইয়র্ক সিটির ইলেকশন বোর্ড জানিয়েছে, স্ট্যাটেন আইল্যান্ড কাউন্টি থেকে ফ্রান্সিস রেকশ নামে এক বাসিন্দার ভোট পেয়েছে ইলেকশন বোর্ড। অথচ রেকশ মারা গেছেন ২০১২ সালে। ১৯১৫ সালে তিনি জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তিনি একজন রেজিস্টার্ড ডেমোক্র্যাট বলে জানা গেছে। ৬ অক্টোবর মেইলের মাধ্যমে রেকশের ভোট আসে। ৮ অক্টোবর সেই ভোট বৈধ হিসেবে নিবন্ধনও করে ইলেকশন বোর্ড।

একইভাবে আরেকটি ভোট গ্রহণ করেছে নিউইয়র্ক সিটির ইলেকশন বোর্ড। গেরট্রুড নিজারে নামের ওই ভোটার মারা গেছেন ৪ জুলাই ২০১৬ সালে। ইলেকশন বোর্ডের রেকর্ড অনুসারে, ৯ অক্টোবর ভোট দিয়েছেন গেরট্রুড এবং সেই ভোট বৈধ বলে গৃহীত হয়েছে ২৫ অক্টোবর।

মৃত মানুষের ভোট দেওয়ার ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে দেশটিতে। নড়েচড়ে বসেছে ইলেকশন বোর্ড। শুরু হয়েছে তদন্ত।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img