বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

তুরস্কে ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৯

তুরস্কে সৈকত নগরী ইজমিরে বিধ্বংসী ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৩৯ জন। এ ছাড়া ৭ মাত্রার শক্তিশালী এই ভূমিকম্পে আহত হয়েছেন ৮৮৫ জনের বেশি মানুষ।

আনাদোলু এজেন্সির খবরে বলা হয়েছে, শনিবার (৩১ অক্টোবর) দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফাহরেতিন কোকা বলেন, ইজমির ভূমিকম্পের পরে ২৪৩ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে আটজন নিবিড় পরিচর্যায় আছেন এবং তিনজনের অবস্থা গুরুতর।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা জানায়, শুক্রবার ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল তুরস্কের ইজমির প্রদেশে। পার্শ্ববর্তী অ্যাথেন্স এবং ইস্তাম্বুলেও কম্পন অনুভূত হয়। এতে ইজমির শহরের অন্তত ২০টি বহুতল ভবন ধসে পড়ে।
ইজমির শহরে ভেঙে পড়া কংক্রিটের টুকরোর মধ্য থেকে মানুষজনকে টেনে বের করেন ত্রাণকর্মীরা ।

সমন্বিত পদক্ষেপের মাধ্যমে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সংশ্লিষ্ট সরকারি সব প্রতিষ্ঠান কাজ করেছে বলে জানান তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব। তিনি বলেন, ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত আমাদের নাগরিকদের সঙ্গে আমরা আছি। সম্ভাব্য সবকিছু করার জন্য সমবেতভাবে সবাই অংশ নিয়েছে।

এদিকে তুরস্কের এই পরিস্থিতিতে পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইমরান খান।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) এক টুইট বার্তায় ইমরান খান বলেন, ইজমির ভূমিকম্পে প্রাণহানির বিষয়ে রাষ্ট্রপতি এরদোগান ও তুরস্কের জনগণের প্রতি আমি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। এই বিপদের দিনে সর্বাঙ্গীনভাবে তুরস্কের পাশে আছে পাকিস্তান।

তিনি আরও বলেন, ২০০৫ সালে পাকিস্তান ও এজেকে (আজাদ কাশ্মীর) এ বিধ্বংসী ভূমিকম্পের সময় যেভাবে তুরস্ক আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছিল তা আমরা কখনই ভুলতে পারব না।

এছাড়াও পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভী এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশিও তুরস্কের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img