আফগান শান্তি আলোচনায় বিলম্বের জেরে ২৮ প্রদেশে সংহিংসতার বিস্তার

মার্কিন মদদপুষ্ট কাবুল সররকার ও তালেবানের মধ্যে প্রত্যক্ষ আলোচনা শুরু হতে দেরি হওয়ার জেরে আফগানিস্তানের ৩৪টি প্রদেশের ২৮টিতেই সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে। আলোচনার গুরুত্বপূর্ণ শর্তগুলোতে একমত হতে পারছে না দুই পক্ষ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উত্তরাঞ্চলীয় কুন্দুজ প্রদেশের একটি সরকারি নিরাপত্তা চৌকিতে তালেবানরা হামলা চালায়। এতে অন্তত এক সরকারি নিরাপত্তা কর্মী নিহত ও তিনজন আহত হয় বলে স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

মার্কিন মদদপুষ্ট আফগান সরকারের কন্দুজ প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য রাব্বানি রাব্বানি বলেন, বহস্পতিবার রাত থেকে আফগান সেনা ও তালেবানদের মধ্যে তীব্র লড়াই চলছে। সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ায় জনগণ আতংকিত হয়ে পড়েছে।

কন্দুজ পুলিশের মুখপাত্র ইনামুদ্দিন রাহমানি বলেন, তালেবানরা তাদের আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে। তবে নিরাপত্তা বাহিনী তাদেরকে শক্তভাবে প্রতিরোধ করে যাচ্ছে।

আফগান সেনারা তালেবানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে বলে মার্কিন মদদপুষ্ট আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ও দাবি করে।

মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রুহুল্লাহ আহমদজাই বলেন, গত ২৪ ঘন্টায় তালেবানরা ২৮টি প্রদেশে সরকারি বাহিনীর চৌকি ও ঘাঁটিগুলোর উপর হামলা চালিয়েছে। তবে সেনারা তাদের হামলা প্রতিহত করেছে এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে।

গত মাসে তালেবান হেলমন্দ প্রদশের রাজধানী লস্করগাহ নগরীতে আকস্মিক হামলা চালায়।

যেসব প্রদেশ থেকে সহিংসতার খবর পাওয়া যাচ্ছে সেগুলো হচ্ছে: উরুজঘান, বাঘদিস, বাদাখশান, বাঘলান, বলখ, পাকতিয়া, তাকহার, ঝাওঝান, খোস্ত, জবল, শের-ই-পল, গজনি, ঘোর, ফারিয়াব, ফারাহ, কাবুল, কাপসিয়া, কন্দুজ, কান্দাহার, কুনার, লাঘম্যান, লোগার, মাইদান বারদাক, নানগরহর, নুরিস্তান, নিমরোজ, হেরাত ও হেলমন্দ।

দোহায় শান্তি আলোচনার ধীর গতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করছেন আফগানরা।

কাবুলের অধিবাসী আহমদ বলেন, তারা শান্তিতে আগ্রহী নয়। তারা যদি শান্তি চাইতো তাহলে দুই পক্ষ যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করতো।

তিনি আরো বলেন, আমাদের প্রবীণরা দোহা ও অন্যান্য জায়গায় গিয়ে শান্তি নিয়ে আলোচনা করেছেন। কিন্তু তাদের শান্তি কোন অর্থ বহন করে না।

গত সপ্তাহে জাতিসংঘের এক রিপোর্টে বলা হয়, শান্তি প্রচেষ্টা সত্ত্বেও আফগানিস্তানে সহিংসতার মাত্রা উচ্চ। গত নয় মাসে দেশটিতে ২,১১৭ জন বেসামরিক লোক নিহত হয় বলে রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে।

সূত্র: তোলো নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *