মালয়েশিয়ায় তৈরি হচ্ছে বিশ্বের একমাত্র কুরআনিক ভিলেজ

এশিয়ার ইউরোপ খ্যাত পর্যটন নগরী মালয়েশিয়ার টারাঙ্গানু প্রদেশে এবার নির্মিত হচ্ছে বিশ্বের প্রথম ‘কুরআনিক ভিলেজ’। এর মাধ্যমে জনগণের মধ্যে কুরআনিক জ্ঞানের বিস্তার ঘটবে এবং এই প্রদেশটি একটি জ্ঞানচর্চার শহরে পরিণত হবে বলে মনে করে দেশটির সরকার। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় হবে প্রায় ১৫০০ মিলিয়ন রিঙ্গিত এবং প্রায় ২০ একর জায়গা জুড়ে নির্মিত হবে এই মেগা প্রকল্পটি।

মেগা প্রকল্পটির নকশা প্রকাশ করে মালয়েশিয়ার ফেডারেল টেরিটরিমন্ত্রী আনোয়ার মুসা তার ভেরিফায়েড ফেসবুক ও টুইটারে বলেন, কুরআনিক ভিলেজ এর নকশা চূড়ান্ত করা হয়েছে। সরকার ইতোমধ্যে প্রকল্পটিতে নীতিগতভাবে সম্মত হয়েছে এবং এর অর্থায়ন সরকার অনুমোদন করেছে। ২০২১ সালে এর কাজ শুরু করতে পারব ইন-শা আল্লাহ।

এটি বিশ্বের একমাত্র কুরআনিক ভিলেজ হতে যাচ্ছে বলে দাবি মালয়েশিয়ার। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে সেখানে থাকবে ৫ হাজার মুসল্লীর ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন একটি নতুন মসজিদ, একটি কুরআন বিজ্ঞান ও ভবিষ্যদ্বাণীমূলক জীবনী কেন্দ্র, একটি ছাত্রাবাস এবং অনুষ্ঠান আয়োজনের স্থান, একটি বাজার এবং একটি শিল্পকলা কেন্দ্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *