বৃহস্পতিবার, মে ১৯, ২০২২

কঠোর নিষেধাজ্ঞা শেষে শুরু হচ্ছে সর্বাত্মক লকডাউন

শেখ আশরাফুল ইসলাম | ইনসাফ


করোনা সংক্রমণের উর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে গত সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে সপ্তাহব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করেছিল সরকার। বিভিন্ন অভিযোগ, অনিয়ম আর জনসাধারণের বিক্ষোভে লক ডাউন রূপান্তরিত হয় নিষেধাজ্ঞায়। মন্ত্রী পরিষদের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম লকডাউন ঘোষণার দ্বিতীয় দিনেই সাফ জানিয়ে দেন, আমরা লকডাউন ঘোষণা করিনি, ঘোষণা করেছি কঠোর নিষেধাজ্ঞা।

কঠোর নিষেধাজ্ঞার প্রথম দিনেই গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি অমান্যসহ অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ ওঠে। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়া কোন কোন যায়গায় দ্বিগুণ রাখা হয়। তবে এ ব্যাপারে প্রশাসনকে তেমন কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে দেখা যায়নি। তবে কঠোর নিষেধাজ্ঞায় বন্ধ ছিল দূরপাল্লার বাস।

সপ্তাহব্যাপী এই কঠোর নিষেধাজ্ঞায় প্রথমে সবকিছু বন্ধ ঘোষণা করলেও পরে সবকিছুই খোলা রাখার অনুমতি দেয় সরকার। বন্ধ থাকা গণপরিবহনসহ মার্কেট ও দোকানপাট সবকিছুই খোলে দেওয়া হয়। আজ রবিবার (১১ এপ্রিল) শেষ হচ্ছে এই ‘কঠোর নিষেধাজ্ঞা’।

তবে এবার সরাসরি ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ ঘোষণা করেছে সরকার। এতে জরুরি সেবা ছাড়া সরকারি-বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। গার্মেন্টস কারখানা বন্ধ থাকবে। অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া সকল প্রকার গণপরিবহনও বন্ধ থাকবে।

এদিকে জটিলতা দেখা দিয়েছিল কঠোর নিষেধাজ্ঞা ও সর্বাত্মক লকডাউনের মধ্যবর্তী ১২-১৩ এপ্রিল নিয়ে। এই দুই দিন দেশে কী ধরনের নির্দেশনা বহাল থাকবে এই নিয়ে জনমনে ছিল প্রশ্নের স্তুপ। এমন সময় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানালেন, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সকল আন্ত জেলা গণপরিবহন বন্ধ থাকবে।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সর্বাত্মক লকডাউনে কার্গো ফ্লাইট ব্যাতিত বন্ধ থাকবে সকল প্রকার অভ্যন্তরীন ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img