রবিবার, জুলাই ২৫, ২০২১

‘এসএসসিতে ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা বাদ দেওয়ার চক্রান্ত দেশবাসী মেনে নেবে না’

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ, সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন, আনোয়ার হোসেন ও সেক্রেটারী মাওলানা এবিএম জাকারিয়া এসএসসি পরিক্ষায় ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা বাদ দিয়েছে উল্লেখ করে গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক যৌথ বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, এসএসসি পরিক্ষায় ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত গভীর চক্রান্তের অংশ। এসএসসির মতো গুরুত্বপূর্ণ একটি পাবলিক পরিক্ষায় ধর্মীয় শিক্ষা না থাকলে জাতীয়ভাবে তা গুরুত্বহীন হয়ে পড়বে। এতে ধর্মের প্রতি বিমুখ হয়ে নতুন প্রজন্ম নাস্তিকতার দিকে ধাবিত হবে।

তারা বলেন, পাকিস্তান আমল থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত ধর্ম শিক্ষা পাবলিক পরিক্ষায় গুরুত্বের সাথে নেওয়া হয়েছে। তবে কাদের পরামর্শে পাবলিক পরিক্ষা থেকে তা বাদ দেওয়া হচ্ছে জাতি তা জানতে চায়।

নেতৃবৃন্দ বলেন, একদিকে দেশকে পৌত্তলিকতার দিকে নিয়ে যাওয়ার চক্রান্ত, অপরদিকে পাবলিক পরিক্ষায় ধর্ম শিক্ষা বাদ দেওয়ার চক্রান্ত একই সুতোয় গাঁথা। ইসলামী তথা ধর্ম শিক্ষা পূর্বেও ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে। ষড়যন্ত্রকারীদের পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দেওয়া হবে। অবিলম্বে আগামী ২০২২ সালের এসএসসি পরিক্ষায় ধর্ম শিক্ষা অন্তর্ভূক্তকরণের জোর দাবী জানাচ্ছি।

এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে না আসলে কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো। ধর্ম নিয়ে চক্রান্তকারীদের চক্রান্ত নস্যাৎ করে দেওয়া হবে।

spot_imgspot_img

আরও