শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

ইসরাইলের গুপ্তঘাতকদের গুলিতে এক ফিলিস্তিনি শহীদ

ইনসাফ | নাহিয়ান হাসান


এক ফিলিস্তিনি যুবককে গুলি করে শহীদ করেছে ইহুদিবাদী ইসরাইলের গুপ্ত ঘাতক ইউনিটের সেনারা।

মঙ্গলবার (২৫ মে) আলোচনার জন্য মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন দখলকৃত ফিলিস্তিনের রামাল্লায় এসে পৌঁছানোর অল্প কিছুক্ষণ পূর্বেই এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উম্মুল শারায়িতস্থ ইসরাইলী সেনাদের গুপ্তঘাতক ইউনিট তাকে গুলি করে শহীদ করে।

প্রত্যক্ষদর্শীর তথ্যমতে, অ্যাম্বুলেন্স এসে পৌঁছানোর আগে আগেই গুলিবিদ্ধ ওই ফিলিস্তিনির রক্তক্ষরণের মাধ্যমে মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়েছিলো!

জানা যায়, শহীদ হওয়া সেই ফিলিস্তিনির নাম আহমদ জামিল ফাহাদ। তিনি আল আমারী শরণার্থী শিবিরে বসবাস করতেন।

ফিলিস্তিন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, খুব কাছ থেকেই শহীদ ফাহাদের উপর বেশ কয়েকবার গুলি চালানো হয়।

আমিন আবু রাদ্দাহ নামী এক ফিলিস্তিনি বলেন, ফাহাদ হলেন ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রাক্তন কয়েদি। আল আমারী শরণার্থী শিবিরে তার বন্ধুদের সাথে তিনি বসবাস করতেন। ২০ মিনিটের জন্য গাড়ি রেখে তিনি ঐতিহ্যবাহী কানাফেহ মিষ্টি ক্রয়ের অর্ডার করতে গিয়েছিলেন। গাড়ির দিকে ফিরে আসার সাথে সাথেই তার উপর গুলি চালায় ইহুদিবাদী ইসরাইলের গুপ্তঘাতকরা এবং রক্তক্ষরণের মাধ্যমে তার শাহাদাত বরণকে নিশ্চিত করা হয়।

আল আমারী শিবিরের একজন ফাতাহ কর্মকর্তা বলেন, ফাহাদ ইহুদিবাদী ইসরাইলের গুপ্তঘাতকদের টার্গেট ছিলো না বরং তার চাচারা ছিলো তাদের আসল টার্গেট, যারা কি না দেশটির স্থানীয় গোয়েন্দা সংস্থা দা শিন বেটের মোস্ট ওয়ান্টেড তালিকাভুক্ত।

তবে ইসরাইলের একজন কর্মকর্তা এএফপিকে জানান, সন্ত্রাসী কার্যকলাপে যুক্তদের গ্রেফতার অভিযান চালাতে গিয়ে তাদের একজন সহযোগী বর্ডার পুলিশের গুলিতে নিহত হয়।

শহীদ ফাহাদের পরিবারের প্রতিনিধি খলিল রিজক বলেন, নিরপরাধ ফাহাদকে শহীদ করে দিয়ে ইহুদিবাদী ইসরাইল মারাত্মক অপরাধ করেছে।

খলিল রিজক আল কুদস নেটওয়ার্ককে জানান, সম্প্রতি ইহুদিবাদী ইসরাইল তাদের আসামীর তালিকাভুক্তদের খুঁজে বের করার আওতায় ফিলিস্তিনি যুবকদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সাজা ইত্যাদি কার্যকরকরণ নীতি আরো কঠোর করেছে।

তাছাড়া ওই গুপ্তঘাতকদের ব্যাপারে বলা হচ্ছে যে, হত্যা ও গ্রেফতারের উদ্দেশ্যে শুধুমাত্র ইসরাইলীদের নিয়ে গুপ্তঘাতক বাহিনী গঠন করে সন্ত্রাসী রাষ্ট্রটি।

তাদের প্রধান কাজ থাকে আদিবাসী ফিলিস্তিনিদের ছদ্মবেশে থেকে বেছে বেছে হত্যা ও গ্রেফতার কার্যক্রম পরিচালনা করা!

উল্লেখ্য, ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল কর্তৃক ঘটনাটি এমন সময়ে ঘটলো যখন কিনা মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিংকেন যুদ্ধবিরতি স্থায়ীকরণ প্রচেষ্টার সমর্থনে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সাথে আলাপ ও দিন শেষে ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সাথে সাক্ষাৎ করতে জেরুসালেম এসে পৌঁছেছেন।

সূত্র: আল জাজিরা।

spot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img