শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

৪৮ ঘণ্টায় তিন কোটি ৪১ লাখ টাকা টোল আদায় বঙ্গবন্ধু সেতুতে

গত ৪৮ ঘণ্টায় বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ৪২ হাজার ৬০২টি বিভিন্ন ধরনের যানবাহন পারাপার হয়েছে। এতে টোল আদায় হয়েছে তিন কোটি ৪১ লাখ ২৭ হাজার টাকা।

সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক করোনা সংক্রমণ রোধে দীর্ঘদিন দূরপাল্লার বাস বন্ধ রাখার পর সোমবার (২৪ মে) থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় সরকার। এর পর থেকে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাসের সিরিয়াল পড়ে যায়।

স্বাভাবিকের তুলনায় বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে রোববার (২৩ মে) সকাল ৬টা থেকে সোমবার (২৪ মে) সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ১৮ হাজার ৬০২টি রেকর্ড সংখ্যক যানবাহন পারাপার হয়েছে। এর মধ্যে দূলপাল্লার বাস পারাপার হয়েছে দুই হাজার ৯১৫টি। এতে টোল আদাল হয়েছে এক কোটি ৫৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা।

এর আগে শনিবার (২২ মে) সকাল ৬টা থেকে রোববার (২৩ মে) সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ২৪ হাজার যানবাহন পারাপার হয়েছে। এতে টোল আদায় হয়েছে এক কোটি ৮৭ লাখ টাকা। তবে এদিন দূরপাল্লার বাস কম থাকলেও অন্যান্য যানবাহন বেশি পারাপার হয়েছে এ সেতু দিয়ে।

বঙ্গবন্ধু সেতু টোলপ্লাজা সূত্র জানায়, স্বাভাবিক অবস্থায় এ সেতু দিয়ে ১২/১৩ হাজার যানবাহন পারাপার হয়ে থাকে। এর মধ্যে দূরপাল্লার বাস, ট্রাকের সংখ্যাই বেশি থাকে। কিন্তু করোনা সংক্রমণ রোধে সরকার দূরপাল্লার বাস বন্ধ করে দিলেও এ সেতু দিয়ে স্বাভাবিকের তুলনায় কয়েকগুণ বেশি যানবাহন পারাপার হয়েছে।

এর মধ্যে ট্রাক, পিকআপভ্যান, ব্যক্তিগত গাড়ি, মোটরসাইকেলের সংখ্যাই বেশি। সোমবার (২৪ মে) থেকে সরকার দূরপাল্লার বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার পর এ সেতু দিয়ে করোনার সময় এই প্রথম ২৪ ঘণ্টায় দুই হাজার ৯১৫টি রেকর্ড সংখ্যক দূরপাল্লার বাস পারাপার হয়েছে। তবে দূরপাল্লার বাস চলাচল করায় ছোট ছোট যানবাহন খুব কম পারাপার হয়েছে এ সেতু দিয়ে।

spot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img