বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৬, ২০২২

যৌথ বিনিয়োগে সম্ভাবনা দেখছে বাংলাদেশ-চীন

বাংলাদেশের সস্তা শ্রম এবং বিশ্বের বড় বড় বাজারে রপ্তানিতে শুল্কমুক্ত সুবিধার ফলে চীন ও বাংলাদেশ যৌথ বিনিয়োগে বিপুল সম্ভাবনা দেখছে।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) দুই দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রতিনিধিরা অনলাইনে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ চীন বিনিয়োগ সম্মেলনে এই সম্ভাবনার কথা তুলে ধরেন।

আলোচনায় পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, বাংলাদেশ চীনের সঙ্গে বাণিজ্যিক ও দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরো জোরদার করতে চায়। চীনের কাছে আরো বিনিয়োগ চায় বাংলাদেশ। বিশেষ করে দুই দেশের মধ্যে যৌথ বিনিয়োগের বড় সুযোগ রয়েছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের শ্রমিককরা দক্ষ এবং সংখ্যায় প্রচুর। অন্য দেশের তুলনায় এখনো সস্তায় শ্রম পাওয়া যাচ্ছে। আবার বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক শক্তি হিসেবে চীন প্রযুক্তিতে এগিয়ে আছে। এই দুই শক্তি মিলে যৌথ বিনিয়োগে পণ্য উৎপাদনের মাধ্যমে বিশ্ববাণিজ্যে লাভবান হতে পারে বাংলাদেশ।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ বিশ্বের ৩৮টি দেশে শুল্কমুক্ত রপ্তানি সুবিধা পায় বাংলাদেশ। উদার বিনিয়োগ নীতির ফলে বাণিজ্যিকভাবে লাভবান হওয়ার সুযোগ আছে উদ্যোক্তাদের। প্রায় সব খাতেই বিদেশি বিনিয়োগ উন্মুক্ত। ইজেডগুলোতে অবকাশ সুবিধাসহ সেবা পাওয়া যাচ্ছে কম মূল্যে। সহজে ব্যবসা সূচকের উন্নয়নেও অনেক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বিশ্বব্যাংকের এসংক্রান্ত আগামী প্রতিবেদনে বাংলাদেশের অবস্থান সন্তোষজনক হবে। এসব বিবেচনায় এ দেশে দুই দেশের যৌথ বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে।

spot_img
spot_img

সর্বশেষ