বুধবার, জানুয়ারি ১৯, ২০২২

এক হাজার টাকার জন্য যুবলীগ নেতার মারধর, অপমানে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা!

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় মাত্র ১ হাজার টাকার জন্য বাজারে প্রকাশ্যে আব্দুল গফুর (৪০) নামে এক মাছ ব্যবসায়ীকে পিটিয়েছে যুবলীগ নেতা। পরে অপমান সহ্য করতে না পেরে গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে নিজের প্রাণ দিয়েছেন তিনি। মৃত্যুর আগে ভিডিওতে জানিয়ে গেছেন তার আত্মহত্যার কারণ।

বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৩টায় বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের সনগাঁও ফটিয়াপড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এদিন সকালে স্থানীয় পৌকানপুর বাজারে তাকে মারধর করেন ওই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি জমির উদ্দীন। এরপর তিনি ওষুধের দোকান থেকে গ্যাস ট্যাবলেট নিয়ে খান। মৃত আব্দুল গফুর ওই গ্রামের নেনকু মুহাম্মাদের ছেলে।

আব্দুল গফুরের স্ত্রী রোজিনা বেগম জানান, বৃহস্পতিবার সকালে পাশের গ্রামের পয়জার আলীর ছেলে জমির উদ্দীন টাকা চাইতে বাড়িতে আসেন। আমার স্বামীকে না পেয়ে বাড়ি থেকে রাগ করে বেরিয়ে যান। এরপরে স্থানীয় বাজারে দেখা হলে প্রকাশ্যে বাজারের লোকজনের সামনে তাকে মারধর করেন।

প্রতিবেশী নাসিরুল ইসলাম জানান, আমরা গফুরকে বাঁচানোর জন্য বালিয়াডাঙ্গী হাসপাতাল ও ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলাম। ডাক্তার বলেছে গ্যাস ট্যাবলেট খাওয়া রোগীকে বাঁচানো সম্ভব নয়। পরে আমরা তাকে বাড়িতে নিয়ে আসলে বিকেল ৩টায় মারা যান তিনি।

হাসপাতাল থেকে ফেরত নিয়ে আসার পর মৃত্যুর আগে আব্দুল গফুর একটি ভিডিওতে বলে গেছেন, টাকার জন্য প্রকাশ্যে গালিগালাজ ও মারধরের অপমান সহ্য করতে না পারায় তিনি গ্যাস ট্যাবলেট খেয়েছেন।

মাত্র ১ হাজার টাকার জন্য প্রকাশ্যে মারধর ও আত্মহত্যায় বাধ্য করার দায়ে যুবলীগ নেতার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে মৃত ব্যবসায়ীর পরিবার ও প্রতিবেশীরা।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুল হক প্রধান জানান, মোবাইলে ঘটনা সম্পর্কে জানতে পেরেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানোর ব্যবস্থা চলছে।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img