মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬, ২০২১

দেশের মানুষ তৃণমূল কংগ্রেসকে ঘিরে নতুন ভারতের স্বপ্ন দেখছে: মমতা

ভারতে হিন্দুত্বাদী বিজেপি বিরোধী বিকল্প জোট গঠনের নীরব প্রস্তুতি চলছে অনেক দিন ধরেই। ক’মাস আগে দিল্লিতে কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধীসহ অন্যান্য বিরোধী দলগুলোর শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বৈঠক সে প্রস্তুতির পালে হাওয়া দিচ্ছে। মূলত আগামী লোকসভা নির্বাচনেই ক্ষমতার পালাবদল চায় বিরোধীরা। আর সে লক্ষ্যে বিজেপ সরকারের বিরুদ্ধে জোটবদ্ধ পরিকল্পনা করছেন তারা।

তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের কথাতেও এবার সে ইঙ্গিতই স্পষ্ট হলো। তিনি বলেছেন, সময়ের যাত্রাপথে এখন বিজেপির বিরুদ্ধে আসল লড়াইয়ের মুখ হয়ে উঠেছে এ তৃণমূল কংগ্রেসই। দেশের মানুষ এখন তৃণমূল কংগ্রেসকে ঘিরে নতুন ভারতের স্বপ্ন দেখছেন।

সম্প্রতি তৃণমূলের লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, বিজেপির বিকল্প মুখ হতে রাহুল গান্ধী ব্যর্থ। মমতাই পারবেন এ ব্যর্থতা কাটাতে।

এক প্রবন্ধে মমতা লিখেছেন, বাংলার সীমা অতিক্রম করে একের পর এক রাজ্য থেকে ডাক আসছে, আপনারা আসুন। নতুন ভারত গড়তে নেতৃত্ব দিক বাংলা।

তিনি আরও লিখেন, দেশের মানুষের দাবি, দিল্লির মসনদ থেকে সরাতে হবে ফ্যাসিবাদী, স্বৈরাচারী বিজেপিকে। মানুষের আশা-ভরসা তৃণমূল কংগ্রেসকে ঘিরে। বিকল্প জোটের নেতৃত্ব নিয়ে আমরা চিন্তিত নই। কিন্তু বাস্তবটা কংগ্রেসকে অনুভব করতে হবে। অন্যথায় বিকল্প শক্তির গঠনে ফাঁক থেকে যাবে।

পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির জোর অবস্থানের পরও বিধানসভা নির্বাচনে ক্যারিশমা দেখিয়েছেন মমতা। এরপর থেকেই বিভিন্ন মহলে আগামী দিনে ভারতের কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে তৃণমূল কংগ্রেসের উঠে আসা নিয়ে কানাঘুষা জোরালো হয়।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করেন, ‘বাংলা নেতৃত্ব দিক’ কথাটির সারার্থ আসলে বিজেপি বিরোধী মঞ্চে মমতার নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করা। তবে দিল্লিতে বিভিন্ন বিরোধী নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর মমতা সাফ বলেছিলেন, কে নেতা হবেন, সেটা বড় কথা নয়। আসল হল বিজেপিকে হটানো।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img