কুয়েতে পাপুলের বিচার নিয়ে সরকারে কোনো অস্বস্তি নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মানব পাচার ও মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগে কুয়েতে গ্রেফতার সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের বিচার লোকাল ক্রিমিনাল (স্থানীয় অপরাধী) হিসেবে হচ্ছে।

এমনটিই জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হিসেবে গত ৪ ও ৫ অক্টোবর কুয়েত সফরে ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মঙ্গলবার তিনি ঢাকায় ফিরেছেন। বুধবার নিজ দফতরে এ নিয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এমপি পাপুল কূটনীতিক হিসেবে যান নাই। তিনি বা তার পরিবার কারও কূটনৈতিক পাসপোর্ট নেই। লোকাল ক্রিমিনাল হিসেবে তারা (কুয়েত) তাকে ধরেছে এবং সেভাবেই তার বিচার হচ্ছে।

তিনি বলেন, এমপি পাপুলের বিচার প্রশ্নে পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিংবা সরকারে কোনো অস্বস্তি নেই। সফরকালে কুয়েতের নতুন আমির এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আমার সাক্ষাত হয়েছে। পূর্ব অনির্ধারিত অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছাড়াও বৈঠকগুলো হয়েছে। অত্যন্ত আন্তরিক পরিবেশে দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কথা হয়েছে। কিন্তু কোথাও পাপুলকাণ্ড নিয়ে কোনো কথা হয়নি। এমনকি সেখানে আমাদের নতুন রাষ্ট্রদূতকেও কুয়েত কর্তৃপক্ষ এখনও এ নিয়ে কিছু বলেনি।

মন্ত্রী আরও বলেন, শুনেছি- স্থানীয় ব্যবসায়ী হিসেবে পাপুল অনেককে চাকরি দিয়েছিলেন। কুয়েতেও কিছু দুষ্ট লোক আছে। এখন তারা খুঁজে বের করছে যে উনি কাকে কাকে চাকরি দিয়েছেন। তারা তাদেরকে মনিটর করছে এবং ভালো হলে রাখছে না হলে বের করে দিচ্ছে। ফলে আমাদের কিছু লোকের চাকরি হারানোর আশঙ্কা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *