রবিবার, আগস্ট ১, ২০২১

পাচারের জন্য রোহিঙ্গাদের জড়ো করা হয় সিলেটে

সিলেটের দক্ষিণ সুরমার কদমতলী থেকে ১৪ রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করেছে র‌্যাপিড একশন ব্যাটেলিয়ান (র‌্যাব-৯)।

এসময় তাদের সাথে আরও দুই বাংলাদেশিকে আটক করা হয। এই দুই বাংলাদেশি মানবপাচারকারি ও আটক রোহিঙ্গা নাগরিদের পাচারের চেষ্ট করছিলেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

রোববার সকালে ১৬ জনকে আটক করা হলেও বিকেলে গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানায় র‌্যাব-৯।

আটককৃত বাংলাদেশিরা হলেন- সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার ডোনা গ্রামের মৃত রিয়াজ মিয়ার ছেলে সেলিম আহমদ (৩০) ও কক্রবাজারের উখিয়ার আব্দুল হামিদের ছেলে সাদেক (২৫)। আটককৃত রোহিঙ্গা নাগরিদের মধ্যে ৪ পুরুষ, ৩ নারী ও ৭ শিশু রয়েছেন।

মিয়ানমারের সামরিক জান্তার নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশের কক্সবাজারের উখিয়া সীমান্তে আশ্রয় নিয়েছে কয়েক লাখ রোহিঙ্গা। গত শুক্রবার এদের মধ্য থেকে প্রায় দেড় হাজার রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে। এই স্থানান্তর নিয়ে আলোচনার মধ্যেই সিলেটে ১৪ রোহিঙ্হা নাগরিক আটক কলেন।

এদের আটক প্রসঙ্গে র‌্যাব-৯ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গণমাধ্যম) ওবাইন জানান, রোববার ভোরে র‌্যাবের কাছে খবর আসে কয়েকজন রোহিঙ্গাকে পাচারের উদ্দেশ্যে কদমতলী বাস টার্মিনাল এলাকায় জড়ো করা হয়েছে। এমন খবর পেয়ে সকালে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

ওবাইন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকৃকত দুই বাংলাদেশি পাচারের উদেশ্যে রোহিঙ্গাদের এখানে নিয়ে এসেছেন এবং জাল কাগজপত্র তৈরী করে বিদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করবেন বলে স্বীকার করেছেন।

তিনি জানান, রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে আন্তর্জাতিক অভিবাসী সংস্থার বেশ কয়েকটি আইডিকার্ড পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ