বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৯, ২০২১

প্রজন্মকে স্মরণ করিয়ে দিন, ৪০০ বছর ধরে বাবরী মসজিদ দাঁড়িয়ে ছিল: ওয়েইসী

ভারতের মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিন প্রধান ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এমপি বলেছেন, আগামী প্রজন্মকে স্মরণ করিয়ে দিন এবং তাদের শেখান যে ৪০০ বছর ধরে অযোধ্যায় বাবরী মসজিদ দাঁড়িয়ে ছিল।

রবিবার (৬ ডিসেম্বর) বাবরী মসজিদ শহীদ করার বার্ষিকী উপলক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি ওই মন্তব্য করেছেন।

ওয়াইসি বলেন, আমাদের পূর্বপুরুষরা ওই মসজিদের হলে নামাজ পড়তেন এবং এর প্রাঙ্গণে রোজা ভাঙতেন। যখন তাঁরা মারা যেতেন তাঁদেরকে মসজিদ সংলগ্ন কবরস্থানে দাফন করা হতো।

আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেন, ১৯৪৯ সালের ২২/২৩ ডিসেম্বর মধ্যরাতে আমাদের বাবরী মসজিদকে অপবিত্র করা হয়েছিল এবং ৪২ বছর পর্যন্ত তাকে অবৈধভাবে দখল করে রাখা হয়েছিল। আজকের দিনেই ১৯৯২ সালে, আমাদের মসজিদকে গোটা বিশ্বের সামনে ভেঙে ফেলা হয়েছিল। এ জন্য যারা দায়ী তাদের একদিনের জন্যও শাস্তি দেওয়া হয়নি, এই না-ইনসাফি কখনও ভুলবেন না।

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তে বাবরি মসজিদের জমিতে হিন্দুদের রাম মন্দির নির্মাণ শুরু করার পরে বাবরী মসজিদ শহীদ করার এটি প্রথম বার্ষিকী। বাবরী মসজিদ শহীদ করার সকল অভিযুক্ত হিন্দু সন্ত্রাসীরা ভারতের আদালত থেকে বেকসুর খালাস পেয়েছে।

১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর প্রকাশ্য দিবালোকে ভারতের উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় কয়েকশো বছরের পুরোনো বাবরী মসজিদকে শহীদ করে দেয় ‘করসেবক’ নামধারী হিন্দু সন্ত্রাসীরা। এর পরে বাবরী মসজিদের জমিতে হিন্দুদের রাম মন্দির নির্মানের আদেশ দেয় ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। যদিও মসজিদের জমিতে রাম মন্দির থাকার কোন প্রমান দিতে পারেনি আদালত। পরবর্তীতে বাবরী মসজিদ শহীদ করার সাথে সম্পৃক্ত সকল হিন্দু সন্ত্রাসীকে বেকসুর খালাস দেয় ভারতের শীর্ষ আদালত।

spot_imgspot_img

আরও