রবিবার, জুলাই ২৫, ২০২১

গাজা থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ও পুনরায় ঐক্য আলোচনার আহবান খালিদ আল বাতিশের

ইনসাফ | নাহিয়ান হাসান


গাজার উপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ও স্থগিত থাকা ঐক্যের আলোচনা পুনরায় শুরু করতে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষকে আহবান জানিয়েছেন পলিটিক্যাল ব্যুরো অফ ইসলামী জিহাদের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য খালিদ আল বাতিশ।

বুধবার (২ ডিসেম্বর) ফিলিস্তিনের সামাজিক ব্যক্তিত্বদের নিয়ে করা সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই আহ্বান জানান।

খালিদ আল বাতিশ বলেন, ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই দখলদার অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্থাপনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে হবে।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনি প্রজেক্টগুলো দ্বিধার দোলাচালে দোদুল্যমান। এমনকি ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের সাথে নতুন নিরাপত্তা ও সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণ চুক্তির মতো শতাব্দী সেরা ভুলের কারণে তা খারাপ থেকে আরো খারাপতর হচ্ছে!

আল বাতিশ আরো বলেন, আমাদের সামনে এখন দুটি চ্যালেঞ্জ। আর তা হল, ইহুদিবাদী ইসরাইলের অবৈধ দখল, অবিচার, অবৈধ সংযুক্তি ও বসতি স্থাপন প্রকল্পগুলোকে প্রতিরোধ করা এবং অভ্যন্তরীণ বিভাজন দূর করে গাজার উপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে সেগুলোর বিরুদ্ধে সংগ্রাম করা।

এছাড়াও তিনি বলেন, ২০০৫ এবং ২০১১ সালে ফিলিস্তিনি দলগুলোর ঐক্যমতে প্রতিষ্ঠিত পিএলওকে আবার ফিলিস্তিনি দলগুলোর মাঝে পুনর্গঠন করতে হবে।

সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত ফিলিস্তিনি দলগুলির সেক্রেটারি-জেনারেলদের বৈঠক ও তুরস্কে আয়োজিত হামাস-ফাতাহর আলোচনা সভার ভূয়সী প্রশংসা করে আল বাতিশ বলেন, আমরা সত্যিকার অর্থেই অংশীদারীত্বের খুব কাছে ছিলাম।আমি মনে করি, ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের সাথে নিরাপত্তা সহযোগিতা চুক্তি থেকে সরে আসার পর আত্মসমর্পণ না করেই ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষকে সমোঝোতার পথ উন্মুক্ত রাখতে হবে।

করের রাজস্ব গ্রহণ করার ব্যাপারে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের অধিকার রয়েছে তবে তার (কর রাজস্ব গ্রহণের) বিনিময় যেনো কোনোভাবেই ফিলিস্তিন বা ফিলিস্তিনের জাতীয় ঐক্য না হয়।

আল বাতিশ এই বিষয়ে হতাশা ব্যক্ত করে বলেন, গাজা উপত্যকায় বসবাসকারী ফিলিস্তিনিরা কি সর্বদাই এখানে আর ওখানে আলোচনায় ব্যার্থতার খেসারত দিয়ে যাবে?

সূত্র: মিডলইস্ট মনিটর

spot_imgspot_img

আরও