শনিবার, জুলাই ২৪, ২০২১

শুল্কের ১০০ কোটি ডলার ফিলিস্তিনকে দিতে বাধ্য হলো ইসরাইল

আটকে থাকা অর্থের ১০০ কোটি মার্কিন ডলার ফিলিস্তিনিদের পাঠিয়ে দিয়েছে ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল। দু’পক্ষের মধ্যে যোগাযোগ শুরুর দু’সপ্তাহের মধ্যে অর্থ ছাড় দিলো ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ।

বুধবার (২ ডিসেম্বর) ফিলিস্তিনের জনপ্রশাসনমন্ত্রী হুসেইন আল শেখ এ তথ্য জানান।

এক টুইট বার্তায় বলেন, ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ দেনার সব অর্থ ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের অ্যাকাউন্টে হস্তান্তর করেছে। যার পরিমাণ ৩৭৬ কোটি ৮০ লাখ শেকেল। এসব অর্থ ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের হয়ে ইসরাইল সংগ্রহ করেছিল। যার মধ্যে আয়কর এবং শুল্ক অন্তর্ভুক্ত।

মে মাসে ইসরাইলের সঙ্গে সবধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় ফিলিস্তিন। ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস তখন জানান, পশ্চিমতীরে ইসরাইলি সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনার প্রতিবাদে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আগস্টে সংযুক্ত আমিরাত ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকের চুক্তি করে। চুক্তির শর্ত অনুযায়ী সার্বভৌমত্ব পরিকল্পনা স্থগিত করে তেল আবিব।

যোগাযোগ বন্ধের পর ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ইসরাইলের কাছ থেকে আয়কর এবং শুল্কের কোনো অর্থ গ্রহণ করেনি। যে অর্থ ফিলিস্তিনের হয়ে ইসরাইল সংগ্রহ করে।

গেলো মাসে ইসরাইলের সঙ্গে পুনরায় যোগাযোগ শুরুর ঘোষণা দেয় ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ।

চলতি মাসের শুরুতে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইসরাইলি এক কর্মকর্তা জানান, মন্ত্রিপরিষদের নিরাপত্তা বিভাগ অর্থ ছাড়ের অনুমোদন দিয়েছে। তবে অর্থের পরিমাণ তখন তা উল্লেখ করা হয়নি।

সোমবার ফিলিস্তিনি প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শাত্তিয়াহ বলেন, ওই অর্থ ফিলিস্তিনিদের। যা দিয়ে সংকটে থাকা অর্থনীতি কিছুটা হলেও গতি পাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

শাত্তিয়াহ বলেন, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাদের পাওয়া অর্থ পেয়ে যাবেন। তারা কয়েক মাস ধরে ধৈর্য ধরে আছেন। এক মাস বা তার থেকে একটু বেশি সময়ের মধ্যে সবাই নিজেদের প্রাপ্ত অর্থ পেয়ে যাবেন।

spot_imgspot_img

আরও