শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

ইসরাইলকে খুশি করতেই সরকার পাসপোর্ট থেকে ইসরাইল শব্দটি উঠিয়েছে : চরমোনাই পীর

পাসপোর্ট থেকে ইসরাইলে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেওয়ায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে এর তীব্র জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী রেজাউল করীম।

চরমোনাই পীর বলেন, সরকার পাসপোর্ট থেকে ইসরাইলের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে মুসলমানদের চেতনায় আঘাত করেছে। জায়নবাদী ইহুদী রাষ্ট্র ইসরাইলকে খুশি করতেই সরকার পাসপোর্ট থেকে ইসরাইল শব্দটি উঠিয়ে দিয়েছে। যা ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উপ-মহাপরিচালক গিলাড কোহেন এর সন্তোষ প্রকাশ করার মধ্য দিয়ে তা ফুটে উঠেছে। সরকারের এ সিদ্ধান্ত ফিলিস্তিনি মুক্তিকামী মানুষের রক্তের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা ও বাংলাদেশের ১৮ কোটি মানুষের চিন্তা-চেতনা, বোধ-বিশ্বাসের পরিপন্থী। এধরণের সিদ্ধান্ত দেশে নতুন করে সংশয় ও সন্দেহ সৃষ্টি করবে, যা কখনোই কারো কাম্য নয়।

আজ সোমবার (২৪ মে) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে চরমোনাই পীর এসব কথা বলেন,

বিবৃতিতে চরমোনাই পীর বলেন, একটি অবৈধ, দখলদার সন্ত্রাসী রাষ্ট্রের সাথে বাংলাদেশের মানুষ কখনো আপোষকামী মনোভাব মেনে নেবে না। ফিলিস্তিনি নাগরিকদের নিরাপত্তা, স্থায়ী-স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আমাদের কাজ করতে হবে। বিশ্বে মানুষে মানুষে, ধর্মে ধর্মে, দেশে দেশে সহযোগিতা ও সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক থাকবে কিন্তু সন্ত্রাস ও দখলদার শক্তির কোন স্থান দেয়া যাবে না।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ সরকার কেন নতুন করে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ইসরাইলকে স্বীকৃতি দিতে যাচ্ছে? ইসরাইল শুধু মধ্যপ্রাচ্য নয়, গোটা পৃথিবীর জন্য এখন একটা হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইসরাইল ইসলামের চির শত্রু, মুসলমানের শত্রু, মানবতার শত্রু, পৃথিবীর শত্রু। কারণ তারা পুরো পৃথিবীতে অশান্তির আগুন জ্বালিয়ে রেখেছে।

চরমোনাই পীর বলেন, বৃহৎ সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম দেশ বাংলাদেশ-এর মানুষের মতামতের প্রতি কোন প্রকার তোয়াক্কা না করে ইসরাইলর পক্ষাবলম্বন করলে তা হবে সরকারের জন্য চরম ভুল। মুসলিম রাষ্ট্র বাংলাদেশ কখনো ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেয়নি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও তা করেননি। কারণ তিনি জানতেন মুসলিম উম্মাহর সেন্টিমেন্ট বিরোধী কোন সিদ্ধান্ত কল্যাণ বয়ে আনবে না।

প্রসংগত, বাংলাদেশের পাসপোর্টে এতদিন ধরে লেখা থাকতো ‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড একসেপ্ট ইসরাইল’। তবে নতুন ই-পাসপোর্টে সংশোধন করে লেখা হচ্ছে ‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড’। এখানে ‘একসেপ্ট ইসরাইল’ লেখাটি বাদ দেওয়া হয়েছে। এর মানে হলো বাংলাদেশের পাসপোর্ট এখন ইসরাইলসহ বিশ্বের সব দেশের ক্ষেত্রেই বৈধ। তিনি পাসপোর্টে ‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড একসেপ্ট ইসরাইল’পুনরায় সংযোজন করার আহ্বান জানান।

spot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_img