সাইপ্রাসে দুটি আলাদা রাজ্য গঠন করা উচিত: এরদোগান

ইনসাফ | নাহিয়ান হাসান


সাইপ্রাস উত্তেজনা নিরসনে দুটি আলাদা রাজ্য গঠনের লক্ষ্য নিয়ে আলোচনা করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) উত্তর সাইপ্রাস সফরকালে তিনি এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, দু’ভাগে বিভক্ত দীপপুঞ্জ সাইপ্রাস নিয়ে আলোচনার মূল উদ্দেশ্য হওয়া উচিত দুটি পৃথক রাজ্য গঠন করা।

এরদোগান আরো বলেন, আগের বৈঠকের মূল উদ্দেশ্য ছিল ভূমধ্যসাগরীয় দীপপুঞ্জটিকে একীকরণ করা, যার দক্ষিণের দুই তৃতীয়াংশই কিনা ইউরোপীয় ইউনিয়নভূক্ত সাইপ্রাসের গ্রীকভাষী নাগরিক অধ্যুষিত! অথচ সেখানকার তুর্কী জনগণের কথা চিন্তা করা হয়নি। যদিও সাইপ্রাসের উত্তরাংশ ১৯৭৪ সাল থেকে তুরস্কের অধীনস্থ।

এছাড়াও বক্তব্য প্রদানকালে তিনি ‘দুই জনগণ দুই পৃথক রাজ্য’ এই স্লোগানটি তুলে ধরেন।

পূর্ব ভূমধ্যসাগর ও ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে চরম উত্তেজনার এই সময়ে প্রেসিডেন্ট এরদোগানের উত্তর সাইপ্রাস সফরের ব্যাপারে তীব্র নিন্দা জানিয়েছে সাইপ্রাস।

তারা এরদোগানের এই সফরকে নজিরবিহীন উস্কানী বলে দাবি করছে।

উল্লেখ্য, উত্তর সাইপ্রাসের স্বঘোষিত তুর্কী প্রজাতন্ত্রের অধিভুক্ত দিবসকে কেন্দ্র করে প্রেসিডেন্ট এরদোগান উত্তর সাইপ্রাস ও উত্তেজনাপূর্ণ ভারুশা অঞ্চল সফর করেন এবং একসময়কার গৌরবান্বিত ভারুশা সমুদ্র সৈকতটি পুনরায় খুলে দেওয়ার ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নিবেন বলে আশ্বাস দেন।

বিশ্বের অন্যতম বিলাসবহুল হোটেল ইত্যাদির অবস্থান ছাড়াও একসময় ভারুশা সমুদ্র সৈকতটি সেলিব্রিটিদের পদচারণায় মুখর থাকতো। এমনকি এই অঞ্চলটিকে ভূমধ্যসাগরীয় রত্ন নামেও আখ্যায়িত করা হতো। অথচ এই সৈকতটি দীর্ঘদিন যাবত বন্ধ করে রাখা হয়েছিল।

সূত্র: আল জাজিরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *