মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬, ২০২১

আফগানিস্তানের বাদগিস প্রদেশে গোত্র প্রধানদের মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতি

আফগানিস্তানের বাদগিসের রাজধানী কালা-ই-নাউ শহরে বিভিন্ন গোত্রের প্রধানদের মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতে সম্মত হয়েছে তালেবান ও মার্কিনপন্থী আফগান সরকারি বাহিনী।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) বাদগিস প্রদেশের গভর্নর হিশামুদ্দিন শাসম এ তথ্য জানান।

হিশামুদ্দিন শাসম বলেন, বিভিন্ন গোত্রের প্রধানদের মধ্যস্থতায় বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা থেকে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়। তালেবানের যোদ্ধারা কালা-ই-নাউ ছেড়ে গেছে।

যুদ্ধবিরতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা আমাদের দেওয়া কথা রাখব এবং আমরা আশা করব তালেবানও তাদের দেওয়া কথার খেলাপ করবে না।

বাদগিস প্রদেশের ঘোরমাচ জেলা তিন বছর আগে, বালা মুর্গহাব পাঁচ মাস আগে, জাওয়ন্দ, কাদিস, মকুর ও আব কামারী জেলা গত মাসে নিয়ন্ত্রণে নেয় তালেবান যোদ্ধারা।

প্রসঙ্গত, তালেবানের সঙ্গে বড় ধরণের বিপর্যয়ের মুখে পড়ে দীর্ঘ দুই দশকের উপস্থিতির পর ফলাফলশূন্য হয়ে আফগান থেকে মার্কিন সেনা ও ন্যাটোকে প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয় আমেরিকা। আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সময়সীমা ১১ সেপ্টেম্বর বলা হয়েছিল। তবে গত বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) হোয়াইট হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে।

আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহার প্রক্রিয়ার মধ্যে দেশটির প্রায় ৮৫ ভাগ এলাকায় তালেবানের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

আমেরিকা ২০০১ সালে আফগানিস্তানে আগ্রাসন শুরু করে। এ যুদ্ধে মার্কিন সামরিক বাহিনীর অন্তত দুই হাজার তিনশ‘র মতো সেনা প্রাণ হারায়। এছাড়া আমেরিকা ও ন্যাটোর হাজার হাজার সেনা আহত হয়। আমেরিকার এ যুদ্ধে আফগানিস্তানের হাজার হাজার মানুষ মৃত্যুবরণ করে।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img