মঙ্গলবার, নভেম্বর ৩০, ২০২১

মানুষ আজ সকল কিছু বাদ দিয়ে খেলাফত প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখছে : মাওলানা মামুনুল হক

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর মাওলানা ইসমাইল নুরপুরী বলেন, দলমত নির্বিশেষে সকল মানুষ এদেশের আলেম-ওলামাদেরকে শ্রদ্ধা করে ও ভালোবাসে। ওলামাগণও দেশের যেকোন ক্রান্তিকালে নিজেদের জীবন বাজী রেখে জনগণের পাশে দাড়ান। কিন্তু দেশের ভিতরে ঘাপটি মেরে বসে থাকা কিছু বিদেশী শক্তির ইন্ধনদাতারা আলেম-ওলামা ও ইসলামী শক্তির এই অগ্রযাত্রাকে রুখে দিতে নানারকম ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে এদেশের সর্বজন শ্রদ্ধেয় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সাবেক আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর ইন্তেকালের ৩ মাস পর মিথ্যা ও বানোয়াট হত্যা মামলা করেছে। যে মামলায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের সংগ্রামী ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকসহ ৩৬ জন আলেমকে আসামী করা হয়েছে।

আজ বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে ঢাকা জেলা ক্রীড়া মিলনায়তনে আয়োজিত দলের ৩১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, দেশের শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করার মাধ্যমে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের জন্যই এই মিথ্যা মামলা। তাই সরকারকে অনতিবিলম্বে এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় দেশবাসীকে সাথে নিয়ে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচী দেয়া হবে।

সম্মেলনে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক বলেন, দেশে আজ হাজারো সমস্যা চলছে। দেশে আজ আইনের শাসন আর বাক স্বাধীনতা বলতে কিছুই নেই। বিরোধী দল ও মতের যৌক্তিক সমালোচনা সহ্য করার মত ক্ষমতাটুকু আজ সরকার ও সরকারী দলের কর্মীরা হারিয়ে ফেলেছে। এভাবে একটি দেশ চলতে পারেনা।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার ৪৯ বছরে এদেশের মানুষ অনেক তন্ত্রমন্ত্রের শাসন দেখেছে। কিন্তু প্রকৃত স্বাধীনতা মানুষ পায়নি। তাই দেশের মানুষ আজ সকল কিছু বাদ দিয়ে খেলাফত প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখছে। কিন্তু একটি মহল খেলাফত প্রতিষ্ঠার এই সংগ্রামকে সহ্য করতে পারছে না। এ জন্যই দেশের আলেম-ওলামা ও ইসলামী শক্তির বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে দমিয়ে রাখার পায়তারা করছে। এমনকি বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি ধর্মীয় মাহফিলগুলোতেও বাধা দেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা দিয়ে এবং ধর্মীয় মাহফিলগুলোতে বাধা প্রদান করে খেলাফত প্রতিষ্ঠার সংগ্রামকে রুখে দেয়া সম্ভব নয়।

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সম্মেলনে অন্যান্যদের মাঝ বক্তব্য রাখেন, দলের নায়েবে আমীর মাওলানা খোরশেদ আলম কাসেমী, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা জালালুদ্দীন আহমদ, মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন, মাওলানা কোরবান আলী কাসেমী, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মাওলানা মুহসিনুল হাসান, বাইতুলমাল সম্পাদক মাওলানা মাহবুবুল হক, সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা ফয়সাল আহমদ, যুব মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি পরিষদ সদস্য মাওলানা আবুল হাসানাত, সংগঠন বিভাগীয় সম্পাদক মাওলানা ফজলুর রহমান, ঢাকা মহানগরী সহ-সভাপতি মুফতি নূর মোহাম্মদ আজিজী, মাওলানা ইলিয়াছ হামিদী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ছানাউল্লাহ আমীনী, মাওলানা আতিকুল্লাহ, মাওলানা আনোয়ার হুসাইন রাজী, মাওলানা কামালুদ্দীন ফারুকী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খেলাফত মজলিসের ঢাকা মহানগরী সভাপতি মাওলানা রুহুল আমীন। পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মুফতি মুহাম্মদ আবদুল মুমিন।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img