শুক্রবার, জুন ২৫, ২০২১

মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের বক্তব্য ঔদ্ধত্যপূর্ণ ও উস্কানিমূলক: ইসলামী আন্দোলন

ধর্মীয় নেতাদের নিয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান নওফেলের বক্তব্যকে ঔদ্ধত্যপূর্ণ ও উস্কানিমূলক আখ্যায়িত করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশে এর মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা ইউনুছ আহমাদ ও যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান।

রোবাবর (১৫ নভেম্বর) সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠানে গিয়ে দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর শ্রদ্ধাভাজন ধর্মীয় নেতাদের বিরুদ্ধে ঔদ্ধত্যপূর্ণ ও উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল চরম ইসলামবিদ্বেষীর পরিচয় দিয়েছেন। দেশের কোন ইসলামী নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অশ্রদ্ধা ও অসম্মান করেননি।

তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু শুধু কোন দল বা গোষ্ঠীর নেতা নন। স্বাধীনতার স্থপতি হিসেবে তাকে সবাই সম্মান করে। সঠিক পদ্ধতিতে বঙ্গবন্ধুর রূহের মাগফিরাত কামনার অধিকার সবারই আছে। অতএব ভাস্কর্যের নামে বঙ্গবন্ধুর মূর্তির পরিবর্তে আল্লাহর নিরানব্বই নাম খচিত মিনার নির্মাণের দাবি করা যে বঙ্গবন্ধুর অসম্মান নয় বরং তাকে আরো শ্রদ্ধার আসনে বসানো, একথা যে উপলব্ধি করতে পারে না সে কি করে বিরানব্বই ভাগ মুসলমানের দেশের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রীর দায়িত্ব পায়, তা আমাদের বুঝে আসে না। উপমন্ত্রী নওফেল দেশের সম্মানিত ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ ও তৌহিদী জনতার বিরুদ্ধে ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর অন্তরে আঘাত করেছেন। এরূপ ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের জন্য দেশবাসীর সামনে নওফেলকে প্রকাশ্যে ক্ষমা প্রার্থণা করতে হবে।

নেতৃদ্বয় আরো বলেন, দায়িত্ব জ্ঞানহীন ব্যক্তি নওফেলকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

spot_imgspot_img

আরও