কারাবাখের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর হারানোর কথা স্বীকার করল আর্মেনিয়া

আর্মেনিয়া সমর্থিত নাগার্নো-কারাবাখের সন্ত্রাসবাদী সরকার আজারবাইজানের বাহিনীর কাছে সেখানকার দ্বিতীয় বৃহত্তম শুশা শহর হারানোর কথা স্বীকার করেছে। একই সঙ্গে তারা জানিয়েছে, আজারবাইজানের বাহিনী এখন কারাবাখের প্রধান শহর খানকেন্দির খুব কাছে চলে এসেছে। এ শহরটি স্তেপানাকার্ত নামেও পরিচিত।

নাগোর্নো-কারাবাখের জাতিগত আর্মেনীয় নেতৃত্বের মুখপাত্র বাহারাম পোগোসিয়ান তার অফিশিয়াল ফেইসবুকে জানিয়েছেন যে, আজেরি বাহিনীর কাছে শুশা শহরের পতন হয়েছে।

তিনি বলেন, বেশ কয়েকটি ভাগ্য বিপর্যয় ঘটেছে এবং শুশা শহর এখন আর আমাদের নিয়ন্ত্রণে নেই। শত্রুরা যেহেতু স্তেপানাকার্ত শহরের কাছাকাছি অবস্থান করছে সে কারণে আমাদের এখন ঐক্যবদ্ধ থাকা দরকার।

শুশা শহরটি খানকেন্দি শহরের ১৫ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত যা সাংস্কৃতিকভাবে দু পক্ষের কাছেই গুরুত্বপূর্ণ। এ শহর দখলে নেয়ার পর এখন প্রধান শহর খানকেন্দিতে অভিযান চালানো আজারবাইজানি বাহিনীর জন্য অনেক সহজ হয়ে যাবে।

ছয় সপ্তাহ প্রচণ্ড লড়াইয়ের পর আজারবাইজানের বাহিনী শহরটি দখল করে এবং রোববার দেশটির প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ শুশা দখলের কথা ঘোষণা করেছেন। তবে আর্মেনিয়ার সরকার প্রথমদিকে তা অস্বীকার করেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *