পুলিশি নির্যাতনে যুবকের মৃত্যু: ক্ষোভে ফুঁসছে সিলেট, বিচারের দাবিতে রাস্তায় নিহতের মা

সিলেটে পুলিশি নির্যাতনে রায়হান আহমদের মৃত্যুর প্রতিবাদে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের আখালিয়া এলাকায় মানববন্ধন ও টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেছেন স্থানীয়রা।

বিক্ষব্ধ মানুষের সাথে ছিলেন রায়হানের মা। তিনি ছেলে হত্যার বিচার দাবি করেন।

সোমবার (১২ অক্টোবর) বিকাল ৩টার দিকে বিক্ষোভ করেন স্থানীয়রা।

এসময় রায়হানের মা আহাজারি করে বলেন, আমার ছেলে ছিনতাইকারী বা অপরাধী নয়। তাকে পুলিশ ধরে নিয়ে গিয়ে বিনা দোষে রাতভর নির্যাতন করে হত্যা করেছে। পুলিশ মানুষের রক্ষক, কিন্তু সেই পুলিশই আজ আমার ছেলেকে হত্যা করলো। ঘুষের টাকার জন্য পুলিশ আমার ছেলেকে হত্যা করেছে। রায়হানের দুই মাস ২১ দিনের একটি মাত্র কন্যা সন্তান রয়েছে। সে বড় হলে তাকে আমি কী সান্ত্বনা দিবো, আর আমি কীভাবে এটি সহ্য করবো?

বিক্ষোভকারীরা আল্টিমেটাম দিয়ে বলেন, ৭২ ঘণ্টার ভেতরে রায়হানের হত্যাকারীদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে। তা না হলে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি দেয়া হবে।

সিলেট নগরীর আখালিয়ার রোববার (১১ অক্টোবর) ভোরে রায়হান উদ্দিন (৩৩) নামে এক যুবক নিহত হন। পুলিশি নির্যাতনে যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পরিবার। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ছিনতাইয়ের দায়ে নগরের কাষ্টঘর এলাকায় গণপিটুনিতে নিহত হন রায়হান।

এদিকে ওই এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ গণপিটুনির কোনো প্রমাণ পাওয়া যায় নি। এলাকাবাসীও বলছেন, কাষ্টঘরে গণপিটুনির কোনো ঘটনা ঘটেনি।

রায়হানের পরিবার বলছে, বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ি থেকে রোববার ভোরে রায়হানের পরিবারের কাছে ফোন করে টাকা দাবি করা হয়।

রোববার রাতে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন নিহতের স্ত্রী।

সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি মডেল থানায় স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি বাদি হয়ে রাত ২টা ৩০ মিনিটে ৩০২/৩৪ ধারায় এই মামলাটি দায়ের করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *