মহানবী সা.-কে অবমাননার প্রতিবাদে ভারতের বিভিন্ন শহরে মুসলিমদের বিক্ষোভ

ভারতের বিভিন্ন শহরে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের বিরুদ্ধে মুসলিমরা প্রতিবাদ বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। ফ্রান্সে সম্প্রতি কাল্পনিক কার্টুন প্রদর্শনের মধ্যদিয়ে প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর অবমাননা করায় এবং দেশটির প্রেসিডেন্ট তাকে সমর্থন করে বক্তব্য দেওয়ায় ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা মুসলিম সমাজ।

বাক স্বাধীনতার দোহায় দিয়ে ইসলামবিদ্বেষীদের পক্ষ নিয়ে ইমানুয়েল ম্যাকরন প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়েছে যে, ফ্রান্সে এ ধরনের কার্টুন ছাপানো কখনও বন্ধ হবে না। এর পাশাপাশি তিনি গোটা বিশ্বে ইসলাম ধর্ম সংকটের মধ্যে রয়েছে বলে মন্তব্য করেন।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) ওই ঘটনার প্রতিবাদে ভারতের মধ্য প্রদেশের রাজধানী ভোপালের ইকবাল ময়দানে হাজার হাজার মুসলিম সমবেত হয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে সোচ্চার হন। কংগ্রেস বিধায়ক আরিফ মাসুদের উদ্যোগে ওই প্রতিবাদ সমাবেশ হয়। বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখার সময়ে কংগ্রেস বিধায়ক আরিফ মাসুদ হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের উদ্দেশ্যে ফ্রান্সে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে সেখানকার শাসকের ‘মুসলিম বিরোধী’ অবস্থানের বিরুদ্ধে একটি প্রতিবাদ নিবন্ধ করার আহ্বান জানান।

কংগ্রেস বিধায়ক আরিফ মাসুদ বলেন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ভারতে বাসরত মুসলিমদের আহত করেছেন, সেজন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা উচিত আমাদের এখন ফ্রান্স থেকে আমদানি-রফতানি বন্ধ করে দেওয়া। ভোপালে প্রতিবাদ বিক্ষোভে শামিল হওয়া মুসলিমরা এদিন ‘আল্লাহু আকবর’ ধ্বনি দেন। প্রতিবাদ মঞ্চ থেকে কালো পতাকাও প্রদর্শন করা হয়। পরে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের ছবিও পোড়ানো হয়। অন্যদিকে, ভোপালের ইকবাল ময়দানে করোনা বিধি ভেঙে জমায়েতের অভিযোগে কংগ্রেস বিধায়ক আরিফ মাসুদ এবং অন্য প্রায় ২ হাজার লোকের বিরুদ্ধে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে।

এদিকে, মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে অবমাননার প্রতিবাদ করায় ভারতের মধ্য প্রদেশের উগ্র হিন্দুত্ববাদী বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান কঠোর অবস্থান নিয়ে বলেন, ‘মধ্য প্রদেশ শান্তির দ্বীপ। যারা এর শান্তিকে ব্যাহত করেছে তাদেরকে আমরা কঠোরভাবে মোকাবিলা করব। এক্ষেত্রে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারার অধীনে মামলা দায়ের করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কোনও অপরাধীকে রেহাই দেওয়া হবে না। তিনি যেই হোক না কেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *