বুধবার, জুন ১৬, ২০২১

মোদী সরকার আমাদের ঘরে ফেরাতে চায় না: ক্ষুব্ধ কাশ্মীরি পণ্ডিতরা

কাশ্মীরে ভূমি আইন সংস্কার নিয়ে উপত্যকার রাজনৈতিক দলগুলির বিক্ষোভের পর এবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন কাশ্মীরি পণ্ডিতরা। পণ্ডিতদের সংগঠন এই আইন বদলকে তাদের কফিনে শেষ পেরেক পোঁতা হল বলে অভিহিত করেছেন। ভারতের আগের সরকার যেমন তাদের উপত্যকায় ফেরার বন্দোবস্ত করতে পারেনি, তেমনই মোদী সরকার তাদের উপত্যকায় ফেরা আরও কঠিন করে দিল। তারা বলছেন, এর ফলে মোদী সরকার তাদের কাশ্মীর উপত্যকার বাইরে থাকা আরও সুনিশ্চিত করল।

পরিযায়ীদের পুনর্বাসন ও প্রত্যাবর্তন সংগঠনের চেয়ারম্যান সতীশ মহলদার জানিয়েছেন, “৩১ বছর ধরে আমরা ঘরে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছি। আমাদের উপত্যকায় ফেরার কোনও বন্দোবস্ত না করে সরকার কাশ্মীরের জমি বিক্রি করে দিচ্ছে। আমাদের চিন্তা হচ্ছে, এবার জমি মাফিয়ারা আমাদের মাটি দখল করবে। আমাদের মন্দির, ধর্মীয়স্থল, সব কাশ্মীরি পণ্ডিতদের প্রতিষ্ঠান দখল হয়ে যাবে।” তিনি বলেন, অবিলম্বে এই জমি বিক্রি নিষিদ্ধ করে আগে তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি এই সিদ্ধান্তকে দুঃখজনক আখ্যা দিয়ে বলেছেন, “৫ লক্ষ কাশ্মীরি পণ্ডিত ঘরছাড়া। ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে এগোচ্ছি আমরা। আর কতদিন এই নরক যন্ত্রণা ভোগ করতে হবে আমাদের, এভাবে চললে একদিন আমাদের সম্প্রদায় লুপ্ত হবে।” তিনি এও বলেছেন, ৪১৯টি কাশ্মীরি পণ্ডিত পরিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে লিখিত দাবি জানিয়েছিল পুনর্বাসনের জন্য। কিন্তু বছর ঘুরলেও কাশ্মীরে অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিল করার পর কোনও হেলদোল নেই মোদি সরকারের। এদিকে, পণ্ডিতদের রাজনৈতিক সংগঠন আপনি পার্টি কাশ্মীর মন্ত্রণালয় পর্যন্ত প্রতিবাদ মিছিল করতে চেয়েছিল। কিন্তু ভারতীয় পুলিশ তাদের আটকে দিয়েছে।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

spot_imgspot_img
spot_img

আরও