‘২৫ ডিসেম্বরের আগে আফগানিস্তান ছাড়ার পরিকল্পনা নেই ট্রাম্পের’

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চলতি বছর শেষ হওয়ার আগেই সকল মার্কিন সেনাকে আফগানিস্তান থেকে ফিরিয়ে আনার ঘোষণা দেওয়ার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই এক শীর্ষ পর্যায়ের এমপি জানালেন ডিসেম্বরের আগে সেনাদের ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে সত্যিকারের কোন পরিকল্পনা নেই।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) সেন্টার ফর নিউ আমেরিকান সিকিউরিটি আয়োজিত এক ওয়েবিনারে হাউজ আর্মড সার্ভিসেস কমিটি চেয়ারম্যান অ্যাডাম স্মিথ এক বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “আমি মনে করি প্রেসিডেন্ট সেনা সংখ্যা কমিয়ে আনার যে কথা বলেছেন, যেটা যুক্তিসঙ্গত। এখন, সেটা করার জন্য এক ধরণের পরিকল্পনা রয়েছে। আবার ক্রিসমাসের মধ্যে সেনাদের ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে টুইটও আমরা দেখেছি। আসলে ক্রিসমাসের মধ্যে সেনাদের ফিরিয়ে আনার কোন পরিকল্পনা একেবারেই নেই। হোয়াইট হাউজও এ ধরণের কিছু দেয়নি এবং পেন্টাগনের কাছেও এ ধরণের কিছু নেই”।

ট্রাম্প আর সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের মধ্যে নির্বাচনী বিতর্কে উভয়েই আমেরিকার দীর্ঘতম এই যুদ্ধের ইতি টানার কথা বলেছেন। ৩ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

চার দিন আগে নির্বাচনী প্রচারণার সময় ট্রাম্প ‘অন্তহীন যুদ্ধ’ থেকে সেনাদের ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দেন, যেটা নিয়ে সামরিক কমান্ডার, প্রতিরক্ষা নেতা এবং এমনকি রিপাবলিকান এমপিরা পর্যন্ত উদ্বেগ জানিয়েছেন। ট্রাম্প তালেবানদের সাথে শান্তি আলোচনা শুরু করেছেন এবং এখন আফগান সরকারকে অন্তর্ভুক্ত করে আলোচনা চলছে।

এক সাক্ষাতকারে স্মিথ সেনাদের সংখ্যা দ্রুত কমানোর পক্ষে মত দেন। তিনি বলেন, তিনি আত্মবিশ্বাসী যে, মার্কিন গোয়েন্দারা আফগানিস্তানে এই অন্তর্বর্তীকালীন হামলার বিষয়টি সামলে দিতে পারবে। তিনি বলেন, সেখানে সামরিক উপস্থিতি রাখার বিষয়টিকে প্রাণ ও সম্পদের হানির সাথের মিলিয়ে হিসেব করতে হবে।

স্মিথ বলেন, “আফগানিস্তানে শান্তি না আসা পর্যন্ত যদি অপেক্ষা করতে হয়, তাহলে সেটা আর কখনও হবে না”। তিনি আরও বলেন: “সেখানে প্রায় ২০ বছর ধরে আমরা আছি। আমার মনে হয়, এটা খুবই পরিস্কার হয়ে গেছে যে, আমাদের সামরিক বাহিনী এই সমস্যার সমাধান করতে পারবে না”।

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর ও ডিফেন্স নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *