রবিবার, মার্চ ৭, ২০২১

নবীকে (সা.) নিয়ে কটুক্তি; সুদিপ্ত মণ্ডলের ফাঁসির দাবিতে উত্তাল উত্তরা

রাজধানীর নওয়াব হাবীবুল্লাহ স্কুল এণ্ড কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ দীপ্তি চক্রবর্তির ছেলে সুদিপ্ত মণ্ডল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে মহানবী হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে কটুক্তি ও কুরুচিপূর্ণ ভাষা ব্যবহারের করার প্রতিবাদে অভিযুক্তের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে উত্তরার আলেম উলামা ও সর্বস্তরের তৌহিদি জনতা।

শুক্রবার (৬ নভেম্বর) বাদ জুম’আ দক্ষিণকাল কাঁচা বাজার এলাকায় উলামা পরিষদ উত্তরার উদ্যোগে সুদিপ্ত মণ্ডল ও ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল থেকে এই দাবি জানানো হয়।

৫০নং ওয়ার্ড উলামা পরিষদ উত্তরার সভাপতি মুফতি জাকির হুসাইন কাসেমীর সভাপতিত্বে ও বাইতুল মুমিন মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মুফতি নেয়ামতুল্লাহ আমিনের সঞ্চালনায় বিক্ষোভ মিছিলে শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে গাড়ি ও পায়ে হেঁটে মিছিলসহ হাজার হাজার নবিপ্রেমী জনতা অংশগ্রহণ করে।

এসময় মুক্তিযোদ্ধা সরণী রোড, কাঁচা বাজার সামন থেকে দক্ষিণ আজমপুর রেল ক্রসিং পর্যন্ত রাস্তাগুলো কানায় কানায় ভর্তি হয়ে যায়। কর্মসূচিতে যোগদানকারী জনতার হাতে কালিমা, কুরআনের বিভিন্ন আয়াত ও প্রতিবাদি স্লোগান সম্বলিত প্লে-কার্ড এবং ফেস্টুন দেখা যায়। বিক্ষোভ মিছিলে প্রায় ২০-২৫ হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করেছেন বলে ধারনা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মসজিদুত-তাকওয়ার মুফতি কেফায়েত উল্লাহ আল আজহারী।

সমাবেশে বক্তারা সরকারের প্রতি হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, আগুন নিয়ে খেলা করবেন না। আল্লাহ, নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ও ইসলামের বিরুদ্ধে কটূক্তি করলে মুসলমানের কলিজায় আগুন লেগে যায়। সে আগুনে জ্বলেপুড়ে ছারখার হয়ে যাবে। অনতিবিলম্বে নওয়াব হাবীবুল্লাহ স্কুল এণ্ড কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ দীপ্তি চক্রবর্তির ছেলে সুদিপ্ত মণ্ডলকে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড দিতে হবে। এবং দীপ্তি চক্রবর্তিকে নওয়াব হাবীবুল্লাহ স্কুল এণ্ড কলেজ থেকে অব্যাহতি দিতে হবে।

বক্তারা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি ফ্রান্সের সঙ্গে সকল কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার দাবি জানান এবং ফ্রান্স সরকারকে বিশ্বের মুসলমানদের কাছে নি:শর্ত ক্ষমাা চাওয়ার আহবান জানান।

অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মোল্লারটেক কেন্দ্রীয় মসজিদের খতিব মুফতি এমরান হুসাইন কাসেমি,মুফতি জহির ইবনে মুসলিম, মুফতি শওকাত কাসেমি,মুফতি আমিরুল ইসলাম,মাওলানা ইউসুফ শরীফ, মাওলানা আব্দুল জাব্বার,মাওলানা গাজী মাসুদুর রহমান,মাওলানা মাহদী,মুফতি ফয়সাল মাহমুদ, হাবিবুল্লাহ সিরাজ, মাওলানা ফজলুল হক,মুফতি মনিরুল ইসলাম, মুফতি নুরে আলম সিদ্দিক,

মাওলানা আশরাফুল ইসলাম, মাওলানা সাইফুদ্দীন আহমেদ খন্দকার, মাওলানা সুহাইল আহমেদ, হাফেজ আবু ইউসুফ ও মাওলানা আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।