সত্যিই কি পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত পুতিন?

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত হয়েছেন এবং এ কারণে তিনি শিগগিরই ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াতে পারেন বলে কয়েকটি পশ্চিমা গণমাধ্যম খবর দিয়েছে।

লন্ডন থেকে প্রকাশিত ডেইলি মেইল পত্রিকা এক প্রতিবেদনে লিখেছে, মস্কোর নির্ভরযোগ্য সূত্র দাবি করেছে, প্রেসিডেন্ট পুতিন নিজের সম্ভাব্য পারকিনসন্স রোগের কারণে আগামী জানুয়ারি মাসেই ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াবেন।

এর আগে গত সপ্তাহে খবর বেরিয়েছিল যে, রাশিয়ায় এমন একটি আইন তৈরি করা হচ্ছে যার ফলে ভ্লাদিমির পুতিন আজীবন সিনেটরের মর্যাদা লাভ করবেন।

আইনটির খসড়া খোদ পুতিন তৈরি করেছেন যেখানে বলা হয়েছে, তিনি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আইনগতভাবে সব ধরনের দায়মুক্ত থাকবেন এবং সরকারি সুযোগ সুবিধা ভোগ করবেন।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম রাশাটুডে এই আইনের সূত্র ধরে বলেছে, দেশটিতে সম্ভবত শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়ার ক্ষেত্র প্রস্তুত করা হচ্ছে।

রাশিয়ায় এর আগেও প্রেসিডেন্ট পুতিনের সম্ভাব্য পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশিত হয়েছে। কোনো কোনো সূত্র পুতিনের দুই হাতের অসংলগ্ন নড়াচড়া এবং তার ডান হাতের শক্তি কমে যাওয়ার কথা উল্লেখ করে বলেছে, পুতিন সম্ভবত পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত হয়েছেন।

পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত হলে মানুষের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ বিশেষ করে হাত ও পা কাঁপতে থাকে। এর ফলে হাঁটাচলাতেও সমস্যার সৃষ্টি হয়। মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য এই পারকিনসন্স বর্তমানে বড়ো ধরনের হুমকি হয়ে উঠেছে। এই রোগে আক্রান্ত অনেকেই হয়তো বুঝতেও পারেন না যে তারা পারকিনসন্সে আক্রান্ত হয়েছেন।

উৎস, পার্সটুডে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *