বিশ্ব হিন্দু সংগ্রাম পরিষদ জবির শাখা নেত্রীর বিরুদ্ধে ইসলাম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগ

ইসলাম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগ পাওয়া গেছে বিশ্ব হিন্দু সংগ্রাম পরিষদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক তিথী সরকারের বিরুদ্ধে। একই সাথে সে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার দফতর সম্পাদক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার বিভিন্ন ফেসবুক পোস্ট ও কমেন্ট ভাইরাল হওয়ার পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। ফলশ্রুতিতে ছাত্র অধিকার পরিষদ থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

জানা যায়, তিথী সরকার দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিভিন্ন পোস্ট ও কমেন্টের মাধ্যমে ইসলাম ধর্মানুভূতিতে আঘাত করে মন্তব্য করে আসছিল। সেসব পোস্ট ও কমেন্টের স্ক্রিনশর্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গ্রুপ ও ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ভাইরাল হলে সামাজিক মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠে। অনেকে তিথী সরকার ছাত্র অধিকার পরিষদে যুক্ত থাকার বিষয়ে সংগঠনটির নিন্দা জানায়। আবার তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের জন্য সামাজিক মাধ্যমে দাবি জানায়।

তিথী সরকারের ইসলাম বিরোধী এ সকল কর্মকাণ্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার তাকে সংগঠন থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয় এবং তাকে কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না জানতে চেয়ে সাত দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য বলা হয়।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক আবু বকর খান জানান, আমরা কিছুদিন ধরেই বিষয়গুলো লক্ষ্য করেছি, পরবর্তীতে আমরা তাকে কয়েকবার বোঝানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে তাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামাল বলেন, ওই শিক্ষার্থীর বেশ কয়েকটা স্ক্রিনশর্ট আমি পেয়েছি। সেগুলো পর্যালোচনা করছি। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় খুললে আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যবস্থা নেবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *