ইসলামের বিরুদ্ধে কিছু বলেননি, দাবি ম্যাক্রোঁর: দোষলেন তুরস্ক ও মুসলিম ব্রাদারহুডকে

ইসলামের বিরুদ্ধে কোনো আক্রমণাত্মক বক্তব্য দেননি বলে দাবি করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ।

তিনি বলেন, ‘আমি আসলে ইসলামের বিরুদ্ধে কোনো আক্রমণাত্মক বক্তব্য দিইনি, আমি বক্তব্য দিয়েছি ইসলামিক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে।’

ম্যাক্রোঁর দাবি, তার ওই বক্তব্য মুসলিম ব্রাদারহুড বিকৃত করে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে।

প্যারিস ভিত্তিক সাপ্তাহিক একটি ম্যাগাজিনকে দেয়া সাক্ষাৎকারের বরাত দিয়ে এ বক্তব্য শুক্রবার প্রকাশ করেছে এএফপি।

ম্যাক্রোঁ বলেন, ‘আমি যখন ইসলামী মৌলবাদের বিরুদ্ধে আক্রমণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, তখন আমার বক্তব্য বিকৃত করা হয়। এটা মুসলিম ব্রাদারহুডের মাধ্যমে তুরস্ক ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে দেয়।’

‘যার কারণে এটা জনমতের ওপর ব্যাপকভাবে প্রভাব সৃষ্টি করে। এটা স্বাভাবিকভাবেই সাহারাসহ আফ্রিকাতেও তার প্রভাব পড়েছে।’ যোগ করেন ম্যাক্রোঁ।

ওই সাক্ষাৎকারে তুরস্কের সঙ্গে রাশিয়ার বিরুদ্ধে সরাসরি বক্তব্য দেন ম্যাক্রোঁ।

ম্যাক্রোঁর অভিযোগ, আফ্রিকায় এন্টি ফ্রান্স সেন্টিমেন্ট গড়ে তুলতে তুরস্কের সঙ্গে রাশিয়াও অর্থায়ন করছে।

উল্লেখ্য, ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বিশ্বজুড়ে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। সেইসাথে ফ্রান্সের পণ্য বয়কট করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *