বুধবার, মে ২৫, ২০২২

হেফাজতের হরতাল সফল করায় দেশবাসীকে চরমোনাই পীরের অভিনন্দন

ভারতের হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে গত শুক্রবার বাদ জুম’আ জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকররম, হাটহাজারী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আন্দোলনরত ছাত্র, মুসল্লীদের উপর পুলিশ-সরকারদলীয় নেতাকর্মীদের বর্বরোচিত হত্যা এবং হামলার প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলামের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা শান্তিপূর্ণ হরতাল সফল করায় দেশবাসীকে আন্তরিক অভিনন্দন ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের আমীর মুফতী মুহাম্মাদ রেজাউল করীম।

রেববার (২৮ মার্চ) সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তিনি এই অভিনন্দন জানান।

বিবৃতিতে চরমোনাই পীর বলেন, আজকের স্বত:স্ফূর্ত জনতার হরতাল প্রমাণ করেছে এ সরকার ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়ে ফেলেছে। সরকারকে জনগণের সেন্টিমেন্টের প্রতি সম্মান জানিয়ে জনদাবি মেনে নিতে হবে। অন্যথায় দেশময় যেভাবে শান্তিকামী জনগণ রাস্তায় নেমে এসেছে সরকারের আখের রক্ষা হবে না।

উল্লেখ্য, হেফাজতে ইসলামের ডাকা শান্তিপূর্ণ হরতাল পূর্ণ সমর্থন করেছে ইসলামী আন্দোলন। আজ রোববার ১২টা থেকে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম এলাকায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নেতাকর্মীরা দলের নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীমের নেতৃত্বে হরতাল কর্মসূচি পালনে পিকেটিং করেন। এ সময় পল্টন মোড়, বায়তুল মোকাররম উত্তর গেট, দৈনিকবাংলা এলাকা তৌহিদী জনতার স্রোত নামে। পিকেটিংশেষে বায়তুল মোকাররম উত্তর চত্তরে এক সমাবেশে মিলিত হন দলটির নেতাকর্মীরা।

সমাবেশে ঘোষিত ৬ দফা দাবি মেনে নিতে সরকারের কাছে জোর দাবি জানানো হয়। সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত বিবৃতিতে দাবিগুলো এভাবে তুলে ধরা হয়- ১. চট্টগ্রামের হাটহাজারী এবং বি-বাড়িয়ায় যে সব পুলিশ মিছিলে গুলি চালিয়ে হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তাদেরকে বরখাস্ত করে বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। ২. হাটহাজারী থানার ওসিকে দ্রুত চাকুরী থেকে বরখাস্ত করতে হবে। ৩. প্রত্যেক শহীদ পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপুরণ এবং আহতদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। ৪. মোদী বিরোধী আন্দোলনে যারা গ্রেফতার হয়েছেন, তাদের দ্রুত মুক্তি দিতে হবে এবং হয়রানীমূলক সকল মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। ৫. ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় সরকারদলীয় যে সব গুন্ডাবাহিনী সাধারণ মুসল্লীদের ওপর আক্রমন করেছে, অপমান-অপদস্ত করেছে, তাদেরকে চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনতে হবে। ৬. সারা দেশে সকল মানুষের সভা-সমাবেশ, মিছিল মিটিং এবং প্রতিবাদ প্রকাশের সংবিধানিক ও মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। কর্মসূচী: আগামী ১লা এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাব সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ।

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img