বৃহস্পতিবার, মার্চ ৪, ২০২১

পাকিস্তান মিলিটারিতে ভারতীয় স্পাইওয়্যারের হানা!

‘লুকআউট’ বলেছে, অ্যান্ড্রয়েড-ভিত্তিক প্লাটফর্মের ওপর দুটি ম্যালওয়্যার প্রোগ্রাম ভারতে কাজ করছে। এর একটির নাম ‘হর্নবিল’, অন্যটি ‘সানবার্ড’। এ দুটি প্রোগ্রাম পাকিস্তানি মিলিটারি, দেশটির পরমাণু কর্তৃপক্ষ এবং কাশ্মীরে ভারতীয় নির্বাচনি কর্মকর্তাদের ওপর নজরদারি করছে।

‘লুকআউট’ বলেছে, ম্যালওয়্যার দুটি অ্যাডভান্সড পারসিসটেন্ট থ্রেট (এটিপি) গ্রুপ ‘কনফুসিয়াস’-এর সঙ্গে সম্পৃক্ত। এ ম্যালওয়্যারগুলো রাষ্ট্রীয়ভাবে স্পন্সর করা এবং হতে পারে চুক্তি সাপেক্ষে ভারতের পক্ষে প্রোগ্রাম দুটি কাজ করছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, হোয়াটসঅ্যাপের কথোপকথন থেকেও তারা তথ্য সংগ্রহ করে।

‘হর্নবিল ও সানবার্ড এসএমএস, এনক্রিপটেড মেসেজিং অ্যাপ কনটেন্ট এবং ভৌগলিক অবস্থান নিখুঁতভাবে নির্ণয় করতে সক্ষম। আরও বিভিন্ন ধরনের স্পর্শকাতর তথ্য সংগ্রহ করতে পারে প্রোগ্রাম দুটি।

২০১৩ সালে প্রথম ‘কনফুসিয়াস’-এর উপস্থিতি শনাক্ত হয়। দক্ষিণ এশিয়ায় সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে হামলা পরিচালনার সঙ্গে গ্রুপটি সম্পৃক্ত।

অতীতে উইন্ডোজ ম্যালওয়্যার হিসেবে ‘কনফুসিয়াস’-এর সৃষ্টি হলেও গ্রুপটি ২০১৭ সালে মোবাইল ম্যালওয়্যার হিসেবে তাদের সক্ষমতা বাড়িয়েছে।

‘লুকআউট’ জানায়, হর্নবিল ও সানবার্ডে অত্যাধুনিক সক্ষমতা রয়েছে। ক্যামেরা থেকে ছবি চুরি করা, ব্যবহারকারীর কল লগ ও কন্টাক্টসে প্রবেশ করা, হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ হাতিয়ে নেওয়া- এসব কাজ ভালোভাবেই পারে প্রোগ্রাম দুটি। এসব তথ্য আপলোড করে এপিটি গ্রুপটির সার্ভারে পাঠিয়ে দেয় তারা।

‘সানবার্ড’-এর রিমোট অ্যাকসেস ফাংশন থাকায় এটি কোনো ডিভাইসে নির্দেশ পরিচালনা করতে পারে। ‘হর্নবিল’-এর রয়েছে সার্ভিলেন্স টুল, যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীর কাছ থেকে তথ্য নিয়ে নিতে পারে এটি।

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর

Newsinsaf-march-2021-desknewse-05