কিশোরীকে গণধর্ষণ, আ. লীগের দুই নেতা গ্রেফতার

ফেনীর দাগনভূঞায় এক কিশোরীকে (১৫) গণধর্ষণের দায়ে আওয়ামী লীগ নেতা ডা. করিম মহাজন (৪৭) ও বেলাল হোসেনকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (০৪ নভেম্বর) রাতে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

জানা যায়, উপজেলার মাতুভূঞা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. করিম মহাজন ও ইয়াকুবপুর ইউনিয়নের শরীফপুর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন দীর্ঘদিন যাবত এক কিশোরীকে একে অপরের অজান্তে ধর্ষণ করার অভিযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে দুইজনকেই পুলিশ আটক করেছে।

পুলিশ জানায়, দাগনভূঞা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে ভাড়া থাকা এক কিশোরীকে ডা. করিম মহাজন বিভিন্ন প্রলোভনে দীর্ঘদিন ধর্ষণ করে। অপরদিকে মেয়েটিকে বাসায় একা পেয়ে একই উপজেলার শরীফপুরের বেলাল হোসেনও ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে কিশোরী গর্ভবতী হয়ে পড়লে ডা. করিম মহাজন কৌশলে গর্ভপাত ঘটান।

ঘটনা জানাজানি হলে বিষয়টি স্থানীয়ভাবে টাকা দিয়ে মীমাংসা করার চেষ্টা করে ধর্ষণকারীরা। পরে পুলিশ বিষয়টির খবর পেয়ে রাতেই নিজ নিজ বাড়ি থেকে উভয়কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।

ওই কিশোরী জানায়, ডা. করিম মহাজন দীর্ঘ তিন বছর যাবত আমাকে ধর্ষণ করে আসছে। ধর্ষণের ফলে আমি গর্ভবতী হয়ে পড়লে আমার গর্ভের সন্তান নষ্ট করে দেয় সে। অপরদিকে আসামি বেলাল হোসেন তিন মাস যাবত আমাকে ধর্ষণ করে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *