Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/insaf24net/public_html/wp-content/themes/infinity-news/inc/breadcrumbs.php on line 252

বিপ্লবী ভূমিকায় ইনসাফ!

জুনায়েদ আল আবেদীন | শিক্ষার্থী, মাদরাসাতুর রহমান আল আরাবিয়া মাদানি নগর


আল্লাহ তাআলা আশরাফুল মাখলুকাতের হেদায়েতের জন্য যুগে যুগে নবী রাসূল প্রেরণ করেছেন৷ অসংখ্য প্রতিকুল পরিস্থিতি মোকাবিলা করে নবীগণ দাওয়াতি কাজ করেছেন৷ উম্মতকে সঠিক পথের দিকনির্দেশনা দিয়েছেন৷ ন্যায়-নীতি ও ইনসাফের কথা শিখিয়েছেন৷

প্রত্যেক নবীকেই আল্লাহ তাআলা কিছু অলৌকিক ক্ষমতা দিয়ে প্রেরণ করেছেন৷ তাদের এই মু’জেযা হতো যুগের চাহিদা অনুযায়ী৷ সমাজের রীতি অনুযায়ী৷

উদাহারণ হিসেবে উল্লেখ করলে যেমন হযরতে মুসা (আ:) এর যামানায় যাদু বিদ্যা বেশ সুখ্যাত ছিলো৷ এজন্য আল্লাহ তাআলা মুসা আ. এর মুজেযাকে যাদুর সাথে সাদৃশ্য করে দিয়েছিলেন৷ এমনিভাবে হযরতে সুলাইমান ও দাউদ (আ.) এর মুজেযার কথাও বেশ প্রসিদ্ধ৷ এখান থেকে একটা কথা পরিস্কার বুঝে আসে যে, বাতিল যখন যেরুপে আত্মপ্রকাশ ঘটায়, হককেও তখন সেরুপ ধারণ করে বাতিলকে প্রতিহত করতে হয়৷ এটাই পৃথিবীর নিয়ম৷
আজ যখন মিডিয়ার নাম শুনলে নাস্তিক্যবাদের আখড়ার স্বচিত্র মানুষের যেহেনে চলে আসে৷ বেহায়াপনা ও অশ্লিলতার দ্বিতীয় নাম যেন বনে গেছে মিডিয়া৷

৯০% মুসলমানের দেশে যখন ইসলামের বিরোধিতা করা এক নব্য ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে৷ অপর দিকে বর্তমান জেনারেশনের অধিকাংশ মানুষ মিডিয়া দ্বারা এতোটা প্রভাবিত যে, মিডিয়াকে গুরত্বহীন স্থানে দাঁড় করাবার সুযোগ নেই৷ এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব না৷

ঠিক ইসলামের এমন এক ক্রান্তিকালে হক্কানী আলেমদের দাঁড়ানোর মতো কোনো মিডিয়া নেই৷ কথা বলবার স্থান নেই৷ হকের বাণী ছড়ানোর মতো হাজারো প্রতিভা যেন একটু আলোর অভাবে হারিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত৷
এমনি একটি দুর্যোগকালে আমাদের প্রিয় ইনসাফ বিপ্লবী বেশে আত্মপ্রকাশ করেছে৷ নতুন দিগন্তে নব্য সূর্য উদয়ের আশা জাগিয়েছে সকলের অন্তরে৷ সদা ন্যায় নীতি ও সততার সঙ্গ দিয়েছে৷ হর হামেশা ইসলামের উপর ভেসে আসা আঘাতগুলোকে কঠোর হাতে প্রতিহত করে এক কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছে।

সকলের সতস্ফুর্ত ভালোবাসা ও নিঃস্বার্থ আত্ম প্রচেষ্টার বিনিময়ে ইনসাফ আজ মিডিয়া জগতের এক অনন্য নাম৷ সকলের নিকটে এক প্রিয় ও পরিচিত নিউজ পোর্টাল৷ হক্কানী আলেমদের কথা বলার একটি আস্থাপূর্ণ জায়গা৷ ঐক্যবদ্ধ এক প্লাটফর্ম। সবদিক থেকে মানুষকে একত্রিত করে। ইসলামি অঙ্গনের উপর আসা আঘাতকে ঢাল হিসাবে আটকিয়ে দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *