মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২১

করোনা সংকটে কেমন আছে কওমী মাদ্রাসার শিক্ষকরা

সোহেল আহম্মেদ


বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও নেওয়া হয়েছে বিভিন্ন পদক্ষেপ। গৃহীত পদক্ষেপ গুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে দেশের সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া। এরই ধারাবাহিকতায় গত মাস তিনেক ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের কওমী মাদ্রাসাগুলো।

ছাত্রদের মাসিক বেতনই কওমী মাদ্রাসা গুলোর একমাত্র আয়ের উৎস। করোনার এই সংকটকালীন মুহুর্তে মাদ্রাসার পাঠদান বন্ধ থাকায় ছাত্রদের বেতন আদায়ও বন্ধ। তাছাড়া প্রতিবছর রমজানের শুরুতে কওমী মাদ্রাসা গুলোতে ছাত্র ভর্তি শুরু হয় এবং মাস দেড়েক ভর্তি চলে। ছাত্রদের কাছ থেকে যে ভর্তি ফি নেওয়া হয় সেটা মাদ্রাসার ফান্ডকে শক্তিশালী করে। ছাত্রদের মাসিক বেতন ও ভর্তি ফি দিয়েই সাধারণত সারাবছর শিক্ষকদের বেতন ও আনুষঙ্গিক খরচাদি চালানো হয়। এবছর রমজানে ভর্তি কার্যক্রম পরিচালনা করতে না পারায় বর্তমানে অধিকাংশ কওমী মাদ্রাসা গুলোর তহবিল শুন্যের কোটায়।

এ কারণে গত তিনমাস ধরে বেতন পাচ্ছেন না কওমী মাদ্রাসার শিক্ষকগণ। পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। কেউ ধার দেনা করে চলছেন। আর কেউ আল্লাহর দরবারে হাত তুলে অসহায়ের মতো কাঁদছেন। অনাহারে অর্ধাহারে কাটছে দিন।

কওমী মাদ্রাসার একাধিক শিক্ষক এ প্রতিবেদককে বলেন, এই লকডাউনে সবচেয়ে বেশি বেকায়দায় পড়েছি আমরা কওমী মাদ্রাসার শিক্ষকরা। আমরা সাধারণত শিক্ষকতার পাশাপাশি অন্য কিছু করার তেমন সময় সুযোগ পাইনা । তাই মাদ্রাসা থেকে যা পাই তা দিয়েই কষ্ট করে চলি। কিন্তু বর্তমানে তিনমাস ধরে মাদ্রাসার বেতন বন্ধ থাকায় চরম বেকায়দায় পড়ে গেছি। আয় রোজগারের কোন পথ করতে পারছিনা। কারো কাছে হাতও পাততে পারছিনা। কিভাবে দিন যাবে কিছুই বুঝতে পারছিনা। জানিনা কবে মাদ্রাসা চালু হবে, আর কবে বেতন পাবো?

গত কয়েকদিন আগে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল উদ্বোধনের সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে পর্যায়ক্রমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেয়া হবে। পরিস্থিতির উন্নতি না হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে না। এদিকে প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। যেকারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়টি আস্তে আস্তে অনিশ্চয়তার দিকেই যাচ্ছে।

কখন পৃথিবী হবে মহামারি মুক্ত, আবার কখন সবকিছু স্বাভাবিক হবে, কখন খোলা হবে মাদ্রাসা, কখন সকল দুঃখের দিন শেষ হয়ে উদিত হবে সুখের সোনালী সূর্য্য সে অপেক্ষায় আজ পুরো কওমী সমাজ।

(লেখক, শিক্ষক ও সাংবাদিক)

spot_img
spot_imgspot_img

সর্বশেষ

spot_img
spot_imgspot_img
spot_imgspot_img